পশ্চিমবঙ্গের নাম ‘বাংলা’ করার দাবিতে মোদিকে চিঠি মমতার


ওহাইও সংবাদ প্রকাশের সময় : জানুয়ারি ১৪, ২০২৪, ৮:৪৩ অপরাহ্ণ /
পশ্চিমবঙ্গের নাম ‘বাংলা’ করার দাবিতে মোদিকে চিঠি মমতার

ওহাইও সংবাদ : মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি পশ্চিমবঙ্গের নাম পরিবর্তন করে ‘বাংলা’ করার দাবি জানিয়েছেন। বৃহস্পতিবার (১১ জানুয়ারি) ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে এ নিয়ে চিঠি দিয়েছেন তিনি।

চিঠিতে বাংলা ভাষাকে কেন ‘ধ্রুপদী ভাষার’ মর্যাদা দিতে হবে সেই যুক্তি তুলে ধরেন মমতা। চিঠির সঙ্গে তিনি বাংলা ভাষা নিয়ে করা একটি গবেষেণাপত্র যুক্ত করে দেন তিনি। মমতা যুক্তি দেন, ‘যদি ভারত ও পাকিস্তান, উভয় দেশে পাঞ্জাব নামে রাজ্য থাকতে পারে, তাহলে বাংলাদেশ নামে একটি দেশ ও বাংলা নামে একটি রাজ্যের অস্তিত্বও অসম্ভব নয়।’

মমতা ব্যানার্জি সাংবাদিকদের কাছে চিঠির বিষয়বস্তু তুলে ধরে বলেন, ‘বাংলা ভাষা মার্যাদার জন্য এটার প্রচীনত্বের প্রমাণ করার দরকার। কিন্তু এই দাবির পক্ষে এতদিন কোনো শক্তিশালী গবেষণাপত্র ছিল না। খ্রিস্টপূর্ব তৃতীয় ও চতুর্থ খ্রিস্টপূর্বাব্দে বাংলা ভাষার অস্তিত্বের সুনির্দিষ্ট প্রমাণ দিয়ে গবেষণা উপস্থাপন করেছি।’

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলার ধ্রুপদী মর্যাদার ক্ষেত্রে মৌখিক এবং লিখিত উভয় ঐতিহ্যকে অন্তর্ভুক্ত করেছে। ঐতিহাসিকভাবে বাংলা ভাষা প্রত্নতাত্ত্বিক অনুসন্ধানে, শিলালিপি, প্রাচীন সংস্কৃত এবং পালি গ্রন্থে উল্লেখ পাওয়া যায়।’

প্রাক-সপ্তম শতাব্দীর বাংলা সাহিত্যের একটি উল্লেখযোগ্য অংশের প্রমাণ তুলে ধরেন তিনি।

নরেন্দ্র মোদিকে উদ্দেশ করে মমতা ব্যানার্জি বলেন, ‘ভারতীয় ছয়টি ভাষা ইতোমধ্যেই ধ্রুপদী ভাষা হিসাবে স্বীকৃতি পেয়েছে।’ বিষয়টি নরেন্দ্র মোদি বিবেচনায় করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়কে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা জারি করার আহ্বান জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, ‘আমি চাই, বাংলা ভাষা শাস্ত্রীয় ভাষা হিসেবে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব স্বীকৃতি পাক।’ সূত্র: টেলিগ্রাফ ইন্ডিয়া